শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২০

ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু ( Mediterranean Climate)

 ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর অবস্থান। ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর বৈশিষ্ট্য।ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চলে কোন বায়ুর প্রভাব বেশি দেখা যায়?


          উষ্ণ নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলে মহাদেশগুলির পশ্চিমাংশে সামুদ্রিক জলবায়ুকে ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু বলে। ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী দেশগুলিতে এই জলবায়ু দেখা যায় বলে এইরূপ নামকরণ হয়েছে। পৃথিবীর যেসব অঞ্চলে ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী দেশ গুলির মত জলবায়ু বিরাজ করে সেগুলি ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর অন্তর্গত।

ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চল



ভৌগোলিক অবস্থান (Geographical Location)

i) অক্ষাংশগত অবস্থান

         উত্তর এবং দক্ষিণ গোলার্ধে 30° থেকে 35° অক্ষরেখা মধ্যে মহাদেশের পশ্চিম দিকে ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু দেখা যায়।

ii) দেশীয় অবস্থান

         ইউরোপ, এশিয়া, আফ্রিকা মহাদেশে ভূমধ্যসাগরীয় উপকূল ভাগে এই জলবায়ুর প্রভাব সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। ইউরোপের পর্তুগাল, ফ্রান্স, ইতালি প্রভৃতি দেশে; এশিয়ার তুরস্ক, ঈশ্রায়েল, সিরিয়া প্রভৃতি দেশে; আফ্রিকার লিবিয়া, মরক্কো, মিশর প্রভৃতি দেশে এই জলবায়ু দেখা যায়।

ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ুর মূল বৈশিষ্ট্য


i) উষ্ণতার বৈশিষ্ট্য

a. গ্রীষ্মকালীন উষ্ণতা

           গ্রীষ্মকালে গড় উষ্ণতা থাকে 21° থেকে 28° সেলসিয়াস। সমুদ্র উপকূল থেকে দূরবর্তী অঞ্চলে উষ্ণতা ক্রমশ বাড়তে থাকে।

b. শীতকালীন উষ্ণতা

             শীতকাল এই অঞ্চলে মৃদুভাবাপন্ন হয়। গড় উষ্ণতা থাকে 4° থেকে 10° সেলসিয়াস। সমুদ্র উপকূল থেকে যতই উচ্চভূমির দিকে যাওয়া যায় তাপমাত্রা ততই কমতে থাকে। উচ্চভূমির তাপমাত্রা হিমাঙ্কের নিচে থাকে।

c. বার্ষিক উষ্ণতার প্রসর

             বার্ষিক গড় উষ্ণতার প্রসর 11° থেকে 17° সেলসিয়াস। সমুদ্র থেকে দূরবর্তী স্থানে উষ্ণতার প্রসর বাড়তে থাকে।

d. দৈনিক উষ্ণতার প্রসর

               শীতকালের তুলনায় গ্রীষ্মকালে আকাশ মেঘমুক্ত থাকায় উষ্ণতার প্রসর বেশি হয়। প্রায় 16° থেকে 22° সেলসিয়াস।

ii) বায়ুচাপের বৈশিষ্ট্য

a. গ্রীষ্মকালীন বায়ুচাপ

               গ্রীষ্মকালে বায়ুচাপ বলয় গুলি করে সরে যাওয়ার ফলে উপক্রান্তীয় উচ্চচাপ বলয় ভূমধ্যসাগর ও তার সংলগ্ণ অঞ্চলে অবস্থান করে। নিরক্ষীয় নিম্নচাপ বলয় এর ঊর্ধ্বগামী বাতাস এই অঞ্চলে নিম্নগামী হয়। ফলে বায়ুচাপ বেশি থাকে।

b শীতকালীন বায়ুচাপ

               শীতকালে সূর্যের দক্ষিণায়ন এর জন্য উপক্রান্তীয় উচ্চচাপ বলয় ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের দক্ষিনে অবস্থান করে।

iii) বায়ুপ্রবাহ সংক্রান্ত বৈশিষ্ট্য

a. গ্রীষ্মকালীন বায়ুপ্রবাহ

                   গ্রীষ্মকালে এই অঞ্চলে উপক্রান্তীয় উচ্চচাপ বলয় অবস্থান করায় বাতাস নিম্নগামী হয়।ফলে বায়ুপ্রবাহ দেখা যায় না।

b. শীতকালীন বায়ুপ্রবাহ

                    শীতকালে এখানে আর্দ্র পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে বৃষ্টিপাত হয়। এছাড়া মেরু প্রদেশ থেকে আসা শীতল বায়ুপ্রবাহের জন্য সৃষ্ট হওয়া নাতিশীতোষ্ণ ঘূর্ণবাত এর জন্য বৃষ্টিপাত হয়।

c. স্থানীয় বায়ুপ্রবাহ

                    এই অঞ্চলে প্রবাহিত উষ্ণ স্থানীয় বায়ু হলো সিরোক্কো (স্পেন, ইতালি), ঘিবলি (তিউনিসিয়া), খামসিন (আলজেরিয়া), লেভেচ (স্পেন), ব্রিকফিল্ডার (ক্যালিফোর্নিয়া, অস্ট্রেলিয়া) প্রভৃতি।
        এখানে প্রবাহিত শীতল স্থানীয় বায়ু হলো মিস্ট্রাল (ফ্রান্সের রোন উপত্যকা), বোরা (অ্যাড্রিয়াটিক সাগরের তীরবর্তী অঞ্চল)।

iv) বৃষ্টিপাতের বৈশিষ্ট্য

a. শীতকালীন বৃষ্টিপাত

          ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু অঞ্চলে শীতকাল আর্দ্র এবং গ্রীষ্মকাল শুষ্ক থাকে। শীতকালে পশ্চিমা বায়ুর প্রভাবে এবং নাতিশীতোষ্ণ ঘূর্ণবাত এর প্রভাবে বৃষ্টিপাত হয়।

b. বৃষ্টিপাতের পরিমাণ

          এখানে গড় বার্ষিক বৃষ্টিপাতের পরিমাণ 25 থেকে 90 সেন্টিমিটার। কিন্তু পশ্চিমা বায়ুর গতিপথে পর্বত থাকলে পর্বতের প্রতিবাত ঢালে 125 সেন্টিমিটার বা তার বেশি বৃষ্টিপাত হয়।


c. মেঘমুক্ত রৌদ্রোজ্জ্বল আবহাওয়া

             বছরের অধিকাংশ সময় আকাশ মেঘমুক্ত থাকায় প্রচুর সূর্যরশ্মি ভূপৃষ্ঠে আসে। মৃদু উষ্ণ এবং রৌদ্রোজ্জ্বল আবহাওয়ার জন্য এই অঞ্চলে প্রচুর পর্যটক ঘুরতে আসে। এই কারণে এই জলবায়ু অঞ্চল কে 'বিনোদনের জলবায়ু' বা "Resort Climate of the World" বলে।

1 টি মন্তব্য:

  1. উষ্ণতা ও বৃষ্টিপাত সূচক লেখ চিত্র থেকে ভূমধ্যসাগরীয় জলবায়ু কে কিভাবে শনাক্ত করবে

    উত্তরমুছুন

Monsoon Though (মৌসুমী ট্রাফ)//Break of Monsoon বা বৃষ্টিপাতের ছেদ//Onset Vortex//N.L.M.(Normal Limit of Monsoon)

 Monsoon Though (মৌসুমী ট্রাফ) কি?       বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে নিম্নচাপ অবস্থান করলে তাকে Though বলে। মৌসুমী বায়ু ভারতে আগমনের পূর্বে 5 ডিগ...