শুক্রবার, ২৮ আগস্ট, ২০২০

মানুষের ক্রিয়া-কলাপ “ পৃথিবীর প্রাকৃতিক সৌরপর্দা” বিনাশের অন্যতম প্রধান কারণ---যুক্তিসহ ব্যাখ্যা দাও।

 




মানুষের ক্রিয়া-কলাপ “ পৃথিবীর প্রাকৃতিক সৌরপর্দা” বিনাশের অন্যতম প্রধান কারণ---যুক্তিসহ ব্যাখ্যা দাও।


        বায়ুমণ্ডলের স্ট্রাটোস্ফিয়ার স্তরে 20 থেকে 30 কিলোমিটার উচ্চতায় ওজোন গ্যাসের ঘনত্ব বেশি থাকায় এই স্তরকে ওজোন স্তর বলে। ওজোন গ্যাস সূর্য থেকে আগত জীবের পক্ষে ক্ষতিকারক রশ্মি গুলিকে শোষণ করে পৃথিবীর জীবকে রক্ষা করে। এই কারণে ওজোন স্তরকে “প্রাকৃতিক সৌরপর্দা” বলে।


         বর্তমানে বিভিন্ন প্রাকৃতিক এবং মনুষ্য সৃষ্ট কারণে ওজোন গ্যাসের স্তর ধীরে ধীরে ক্ষয়প্রাপ্ত হচ্ছে। ওজোন স্তর ক্ষয়-এ প্রকৃতির ভূমিকা থাকলেও মানুষের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। নিম্নে ওজোন স্তর ক্ষয়-এ মানুষের ভূমিকা আলোচনা করা হলো।


১. ক্লোরোফ্লোরোকার্বন গ্যাসের নির্গমন



       মানুষের ব্যবহার করা রেফ্রিজারেটর, হিমঘর, এয়ার কন্ডিশনার, বডি স্প্রে, হেয়ার স্প্রে প্রভৃতি থেকে ক্লোরোফ্লোরোকার্বন বা CFC নির্গত হয়। এর অন্যতম উপাদান ক্লোরিন (Cl)। একটি ক্লোরিন কনা কয়েক লক্ষ ওজোন অনুকে ধ্বংস করতে পারে।



২. হ্যালন গ্যাসের নির্গমন

      অগ্নিনির্বাপক হিসেবে হ্যালোন যৌগ ব্যবহৃত হয়। হ্যালোন যৌগের অন্যতম উপাদান ব্রোমিন। ব্রোমিন পরমাণুর ওজোন ধ্বংসের ক্ষমতা ক্লোরিন-এর থেকেও অনেক বেশি।


৩. মিথাইল ক্লোরোফরম এবং কার্বন টেট্রাক্লোরাইড যৌগের নির্গমন


    দ্রাবক হিসেবে ব্যবহৃত এই যৌগের সংস্পর্শে ওজন অনু এলে ওজন অনু ভেঙে যায়।


৪. সালফেট যৌগের প্রভাব

    কলকারখানার চিমনি থেকে নির্গত সালফার ডাই অক্সাইড এর সঙ্গে সূর্য রশ্মির বিক্রিয়ায় বিভিন্ন প্রকার সালফেট যৌগ তৈরি করে। যার প্রভাবে ওজোন স্তর ক্ষয় হয়।


৫. জেট বিমান

     স্ট্রাটোস্ফিয়ার-এ চলাচলকারি জেট বিমান থেকে নির্গত নাইট্রোজেন অক্সাইড ওজোন গ্যাসের বিনাশ ঘটায়।



         এই সকল কারণের জন্য বলা যায় যে মানুষের ক্রিয়া-কলাপ প্রাকৃতিক সৌর পর্দা বিনাশের অন্যতম কারণ।


কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Monsoon Though (মৌসুমী ট্রাফ)//Break of Monsoon বা বৃষ্টিপাতের ছেদ//Onset Vortex//N.L.M.(Normal Limit of Monsoon)

 Monsoon Though (মৌসুমী ট্রাফ) কি?       বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে নিম্নচাপ অবস্থান করলে তাকে Though বলে। মৌসুমী বায়ু ভারতে আগমনের পূর্বে 5 ডিগ...